Tuesday, September 29, 2015

chiri (bangla poem)

ছিঁড়ি

একটি গভীর গর্তের মাঝে বাঙালির বসবাস
পাড়িতেছে তারা নিঃস্ব প্যাচাল, করিছে সর্বনাশ
পৃথিবী যখন জাগিয়া উঠিছে আমরা তখন ঘুমে
জাবর কাটিছে আঁতেলসমাজ পশ্চাৎদেশ চুমে
চারিদিক থেকে রব উঠিতেছে হঠাও রথসচাইল্ড
মহাসুখে মোরা ভ্যাট দিয়ে যাই মাইন্ড করিনা মাইল্ড
ভারতের শত এসপিওনাজ চালাচ্ছে এই দেশ
আমরা ব্যস্ত সেলফি তুলিতে বিন্যস্ত করি কেশ
বেদ পুরান আর কাব্যগ্রন্থ মারিতেছি কপি পেস্ট
এই কে আছিস, দ্যাখ না আমারে, আমিই সবচে বেস্ট!
বারবার বলি, আবাল বাঙালি, চোখদুটো খুলে দ্যাখ
এই জাতি যেন চাবি দেয়া হাঁস করিতেছে প্যাঁক প্যাঁক!
ঠাণ্ডা মাথায় বুঝাইতে গেলে কত অসভ্য তারা
উশটে উঠিয়া গালি দিবে, "তুই দুরের ঘাটের মরা!"
তবু কহিলাম, ওরে হাঁদারাম, খাঁচার মুরগী তুই
বিদেশী শাসনে পদচুম্বনে হারালি সবকিছুই
দুটাকা বেতনে কি মহাযতনে করেছিস গাড়ি বাড়ি
নিজেকে ভাবিস মহাশয় অতি ফুঁকছিস দামী বিড়ি
রাজনীতি আর ক্রিকেট খেলার রঙ্গ তামাশা দেখে
মেয়েছেলে আর বিদেশী বোতল বিছানার তলে রেখে
কেটে গেল দিন হরষে রঙিন ভাবলিনা কারও কথা
পৃথিবী কোথায়, তুই কত নিচে, করলিনা মাথা ব্যাথা
গণতন্ত্রের ভড়ং ধরিয়া জনতার সম্পদ
খাইছে লুটিয়া কাছাটি ছুটিয়া বিদেশীরা লম্পট
দেখেও দেখনা বুঝেও বোঝনা এ কেমন আহাম্মক?
মগজ ধোলাই করিল টিভির কার্ডেশিয়ান চমক
আমরা শিখানু ওরে ও মজনু অন্য গ্রহের প্রাণী
যুগে যুগে ওরা আমাদের দ্বারা টানায় ওদের ঘানি
তুই তো ভাবিস, "আমি পণ্ডিত, এলিয়েন কিছু নাই"
আমরা দেয়ালে মাথা ঠুকি, কই প্রবলেম সেইটাই
কিছুই না জেনে, বাগাড়ম্বর টেনে পাড়ছিস কত ফাল
বাঙালিরে কিছু বোঝান যায় না তাই বসে ছিঁড়ি বাল।

No comments:

Post a Comment